ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে চোরাই পথে বিক্রি হচ্ছে জ্বালানি তেল ॥ দেখার যেন কেউ নেই

নিজস্ব প্রতিনিধি ॥ ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় তেলের লরি থেকে বিভিন্ন স্পটে হাজার হাজার গ্যালন জ্বালানি তেল বিক্রি হচ্ছে। চোরাই পথে এ তেল বিক্রি হলেও দেখার যেন কেউ নেই। প্রতিদিন তেল চুরি করে বিক্রি করার ফলে ফিলিং ষ্টেশন মালিকরা ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন। অন্যদিকে প্রতিমাসে সরকারকে ভর্তুকি দিতে হচ্ছে লাখ টাকা। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় বাহুবল উপজেলার রশিদপুর পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন তেলের ডিপো থেকে প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে শত শত তেলবাহী লরি বোঝাই করে মৌলবীবাজার, বাহুবল উপজেলার মিরপুর পর্যন্ত আঞ্চলিক সড়ক পথ ব্যবহার করে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের উপর দিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। এতে তেলবাহী লরি চালকরা মহাসড়কের বিভিন্ন স্পটে তেলের লরি থেকে চোরাইভাবে প্রতিদিন হাজার হাজার গ্যালন জ্বালানি তেল পেট্রোল, অকটেন, ডিজেল, কেরসিন বিক্রি করছে অর্ধেক মুল্যে। মহাসড়কে রবাহুবল উপজেলার তিতার কোনা, বশিনা, হবিগঞ্জ সদর উপজেলার লস্করপুর রেল গেইট, চুনারুঘাট উপজেলার উবাহাটা, নতুন ব্রীজ, শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার ডেউন্দি সড়ক চৌমুহনাসহ মহাসড়কে বিভিন্ন স্পটে তেলবাহী লরি দ্বার করিয়ে লাইসেন্স বিহীন তেল চোরাই ব্যবসায়ীরা লরি হতে তেল ড্রামের মধ্যে ভরে দোকানে রাখছে। এসব চোরাই তেল নিয়ে অন্যত্র বিক্রি করা হচ্ছে। এদিকে গতকাল বুধবার ৩ টায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের লস্করপুর রেলগেইটসহ ৩টি তেলবাহী লরি (পিরোজপুর-ঢ- ৪১-০০৬৮), (চট্রো মেট্রো-ঢ-৪১=০৩০৪) ও (নারায়নগঞ্জ-ঢ-৪১০০৪১) থেকে জ্বালানি তেল চোরাই ভাবে নামিয়ে নিতে দেখা গেছে লস্করপুর এলাকার এক তেল ব্যবসায়ীকে। এ সময় তার কাছে তেল নেয়ার কারণ জানতে চাইলে তিনি কোন জবাব দিতে পারেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *